নতুন টিপস [Tips And tricks] টেক টিপস

বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম ২০২৩ / বিকাশ apps রেজিস্ট্রেশন

5/5 - (1 vote)

কেমন আছেন নিশ্চয়ই আশা করি ভাল আছেন আমি তোমাদের দোয়ায় খুবই ভালো আছি আমি তোমাদের মাঝে যে বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করতে চাচ্ছি আশা করি এটাই তোমাদের খুবই ভালো লাগবে আজকের আলোচনার মূল বিষয়টি হচ্ছে বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম ভাবে লক্ষ্য করেন তাহলে জেনে নিতে পারবেন যে বিকাশ মনিটাইজেশন সংক্রান্ত তথ্য বিস্তারিত জানতে দেখুন।

Contents hide

বিকাশ কি?

বিকাশ কি এবং এর মাধ্যমে আমরা কি কি সুবিধা পেতে পারি কেন আমরা বিকাশ ব্যবহার করব বিস্তারিত বিষয়গুলো জানতে অবশ্যই নিচে দেখুন।

বিকাশ এর কাজ কি?

আপনি যদি মোবাইলে টাকা রিচার্জ করতে চান কিংবা আপনি যদি বিদ্যুৎ বিল দিতে চান কিংবা অনলাইনে বিমানের টিকেট বুকিং করতেছেন কিংবা পার্সেল টিকেট বুকিং করতে চান কিনা আপনি যদি ট্রেনের টিকেট বুকিং করতে চান এ ছাড়া ক্যাশ আউট এবং সেন্ড মানি করতে পারবেন বিকাশ ব্যবহার করে।

বিকাশ অ্যাপ ডাউনলোড / বিকাশ রেফার বোনাস

আপনি যদি স্মার্টফোন দিয়ে বিকাশ একাউন্ট খুলতে চান তাহলে আপনাকে অবশ্যই নতুন বিকাশ অ্যাপসটি ডাউনলোড করতে হবে কিভাবে বিকাশ অ্যাপ ডাউনলোড করতে হয় নিচে দেখুন।

কিভাবে বিকাশ অ্যাপ ডাউনলোড করব?

বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম

১. বিকাশ অ্যাপ ডাউনলোড করার জন্য গুগল প্লে স্টোর ওপেন করুন এরপর লিখে সার্চ করুন (bKash app download) সবার উপরে বিকাশ অ্যাপসটি পেয়ে যাবেন এবং ইনস্টল এ ক্লিক করে ইন্সটল করুন।

অনলাইনে বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম?

এখন আমি আপনাকে দেখাবো বিকাশ একাউন্ট অনলাইনে তৈরি করতে জানতে স্টেপ গুলো মনোযোগ সহকারে দেখুন।

১. Bkash account online opening এখানে যে লিংকটি দেওয়া হয়েছে এটির উপরে ক্লিক করুন।

বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম

২. বিকাশ পার্সোনাল রিটেইল অ্যাকাউন্ট খোলার জন্য এখানে যে খালি বক্সটি রয়েছে এটির উপরে ঠিকমত দিয়ে পরবর্তী অপশন ক্লিক করুন।

বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম

৩. এরপর কোন নাম্বার দিয়ে বিকাশ পার্সোনাল রিটেইল অ্যাকাউন্ট তৈরি করতে চান সেই মোবাইল নাম্বার দিয়ে পরবর্তী অপশনে ক্লিক করুন।

বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম

৪. এরপর যে নাম্বার দিয়ে নতুন বিকাশ করতে চান সেই নাম্বারে একটি ওটিপি কোড দেওয়া হবে এটি 6 সংখ্যার হয়ে থাকবে এটি এখানে দিয়ে পরবর্তী অপশনে ক্লিক করুন।

৫. এরপর আপনার আইডি নাম্বার দিয়ে বিকাশের নতুন পিন কোড যোগ করে বিকাশ একাউন্ট খুলে নিতে পারবেন।

অ্যাপ ছাড়া বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম?

এখন আমি আপনাকে দেখাতে যাচ্ছি যে আপনি যদি বিকাশ অ্যাপ ছাড়াই নতুন বিকাশ করতে চান তাহলে কিভাবে খুলবেন জানতে দেখুন।

বাটন ফোনে বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম?

১. *১৪৭# বিকাশ এর কোড এটি তোমাকে তোমার মোবাইলে ডায়াল করতে হবে।

২. এরপর যে নাম্বার দিয়ে বিকাশ একাউন্ট খুলবে সেই নাম্বার দিতে হবে ০ সহ।

৩. এখন তোমার আইডি কার্ডের নাম্বার দিতে হবে।

৪. বিকাশ এর জন্য একটি নতুন পিন কোড যোগ করতে হবে এটি অবশ্যই পাঁচটি সংখ্যা কত হবে।

বিকাশ পার্সোনাল একাউন্ট খোলার নিয়ম?

আপনি যদি পার্সোনাল বিকাশ খুলতে চান আমি দেখিয়ে দিয়েছি এভাবে করে তুমি খুব সহজেই তোমার মোবাইলে বিকাশ নতুন একাউন্ট খুলতে পারবে বিকাশ এজেন্ট এ না গিয়ে নিজে নিজেই।

বিকাশ একাউন্ট খুললে কত টাকা বোনাস?

আপনি যদি নতুন বিকাশ একাউন্টে ১০০ টাকা বোনাস নিতে চান তাহলে এখানে যে লিংকটি দিয়েছি এই লিংকটিতে ক্লিক করুন বিকাশ অ্যাপ ডাউনলোড করে bKash একাউন্ট খুলুন।

বিকাশ এজেন্ট একাউন্ট খোলার নিয়ম?

বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম

আপনি যদি বিকাশ দিয়ে ব্যবসা করতে চান সে ক্ষেত্রে বিকাশ এজেন্ট একাউন্ট কিভাবে খুলবেন এখন আমি নিয়মটি দেখিয়ে দেব যদি আপনি সম্পূর্ণ বিষয়টি জানতে ইচ্ছুক হয়ে থাকেন নিচে দেখুন।

বিকাশ এজেন্ট একাউন্ট খুলতে কত টাকা লাগে?

এখন আপনি জানতে পারবেন যে বিকাশ এজেন্ট খোলার জন্য কি কি প্রয়োজন হতে পারে আমি আপনার বোঝার সুবিধার্থে নিচে লিস্ট করে দিয়েছি দেখুন।

  • আপনার অবশ্যই এনআইডি কার্ড থাকলে হবে।
  • আপনার একটি বিজনেস একাউন্ট থাকতে হবে।
  • Robi, airtel, banglalink, gp, নাম্বার থাকতে হবে।
  • বিকাশ এজেন্ট একাউন্ট খোলার ফর্ম টি জমা দিতে হবে।

মোবাইলে বিকাশ এজেন্ট একাউন্ট খোলার উপায়?

আপনি যদি মোবাইলের বিকাশ এজেন্ড করতে চান তাহলে আপনাকে প্লে স্টোর থেকে বিকাশ এজেন্ট এপ্সটি ডাউনলোড করাতে হবে এরপর বিকাশ এজেন্ট অ্যাপসটি ওপেন করতে হবে।

এরপর বিকাশ এজেন্ট রেজিস্ট্রেশন নামের বাটনে ক্লিক করুন এরপর আপনার এনআইডি কার্ড এর পিছনে এবং সামনের ছবি আপলোড করুন।

যেই নাম্বার দিয়ে বিকাশ এজেন্ট রেজিস্ট্রেশন করতে চান সেই মোবাইল নাম্বারটি দিতে হবে এবং ওখানে যে ওটিপি কোড যাবে এটি দিতে হবে।

এরপর বিকাশ এজেন্ট এর জন্য একটি পিন কোড দিতে হবে।

এরপর আপনি ২৪ ঘন্টার ভিতরে বিকাশ এজেন্ট অ্যাকাউন্ট এক্টিভ করতে পারবেন।

বিকাশ এজেন্ট থেকে টাকা পাঠানোর নিয়ম?

কিভাবে আপনি বিকাশ এজেন্ট থেকে টাকা পাঠাবেন এখন আমি এই নিয়মটি দেখিয়ে দিচ্ছি বিস্তারিত জানতে নিচে দেখুন।

প্রথমে আপনি বিকাশ এজেন্ট এপ্সটি ওপেন করুন এরপর আপনি যে নাম্বারটিতে টাকা পাঠাবেন সেই নাম্বারটি দিন এরপর আপনি কত টাকা পাঠাবেন সেই এমাউন্ট উল্লেখ করে বিকাশ এজেন্টের বিল কোড দিয়ে টাকা পাঠিয়ে দিন।

বিকাশ একাউন্ট থেকে টাকা পাঠানোর নিয়ম?

আপনি যদি বিকাশ অ্যাপ থেকে টাকা পাঠাতে চান সেই ক্ষেত্রে কিভাবে বিকাশ টু বিকাশ টাকা পাঠাবেন বিস্তারিত জানতে দেখুন।

সর্বপ্রথম বিকাশ এপস ওপেন করুন এরপর বিকাশের হোমপেজে দেখতে পাবেন সেন্ট মানি কিংবা ক্যাশ আউট এখানে ক্লিক করুন।

যদি আপনি বিকাশ টু বিকাশে টাকা পাঠাতে চান কিংবা বিকাশ পার্সোনাল নাম্বারে টাকা পাঠাতে চান তাহলে সেন্ড মানিতে ক্লিক করে বিকাশ একাউন্ট এ কত টাকা পাঠাবেন সেই অ্যামাউন্ট উল্লেখ করুন এরপর পিন কোড দিয়ে টাকা সেন্ড করতে পারবেন।

বিকাশ থেকে যদি ক্যাশ আউট করতে চান প্রথমত আপনি বিকাশ এপস এর হোম পেজের ক্যাশ আউট নামের অপশন দেখতে পাবেন এখানে ক্লিক করুন এরপর বিকাশ একাউন্ট থেকে বিকাশ এজেন্ট এ কত টাকা পাঠাবেন এই এমাউন্ট উল্লেখ করে বিকাশের ফোন দিয়ে টাকা ক্যাশ আউট করতে পারবেন।

বিকাশ একাউন্ট নাম্বার পরিবর্তন?

আপনি যদি বিকাশ একাউন্ট নাম্বার পরিবর্তন করতে চান তাহলে সেটি ভুল চিন্তাভাবনা করতেছেন কারণ আপনি কখনো বিকাশ এই নাম্বার দিয়ে তৈরি করেছেন এটি চেন্চ করা না পর্যন্ত আপনি কখনো বিকাশ একাউন্ট পরিবর্তন করতে পারবেন না।

ঘরে বসে বিকাশ একাউন্ট বন্ধ করার নিয়ম?

আপনি যদি আপনার বিকাশ একাউন্ট বন্ধ করে দিতে চান কিংবা বিকাশ একাউন্ট ডিএক্টিভ করতে চান তাহলে আপনাকে (কাস্টমার কেয়ার এর নাম্বার ১৬২৪৭) এই নাম্বারে ফোন দিতে হবে কেন আপনি বিকাশ বন্ধ করে দিতে চান তাদেরকে জানাতে হবে এরপর বিকাশ কাস্টমার কেয়ার থেকে আপনার বিকাশ একাউন্ট বন্ধ করে দিবে।

বিকাশ একাউন্ট বন্ধ হলে করনীয়? / বিকাশ লাইভ চ্যাট

আপনার বিকাশ একাউন্টে যদি কোন রকম সমস্যা হয়ে থাকে কিংবা আপনার বিকাশ একাউন্ট যদি অটোমেটিক বন্ধ হয়ে যায় তাহলে সরাসরি আপনি বিকাশ কাস্টমার কেয়ারে যোগাযোগ করবেন।

পুনরায় বিকাশ একাউন্ট রিয়াক্টিভ করার জন্য আপনার যাবতীয় তথ্যগুলো বিকাশ কাস্টমার কেয়ারে দিতে হবে পুনরায় আপনার বিকাশ একাউন্ট চালু করা হবে।

বিকাশ সিম হারিয়ে গেলে করণীয়?

কোন কারনে আপনি যদি যে সিম দিয়ে বিকাশ একাউন্ট খুলেছিলেন সেটি যদি হারিয়ে যায় সেই ক্ষেত্রে আপনি কি করতে পারেন এখন আমি নিয়মটি আপনাকে বুঝিয়ে দিচ্ছি যদি বিকাশ সিমটি হারিয়ে যাওয়ার আগে বিকাশ অ্যাপ এ আপনার বিকাশ একাউন্ট লগইন করা থাকে তাহলে আপনার সেই নাম্বার আর দরকার হবে না।

যদি আপনার বিকাশ অ্যাপ এ একাউন্টে লগইন না করা থাকে আপনি পুনরায় সিমটি না তোলা পর্যন্ত বিকাশ লগইন করতে পারবেন না বিকাশ ব্যবহার করতে পারবেন না।

বিকাশ নাম্বার কিভাবে দেখে / বাটন ফোনে বিকাশে টাকা দেখার নিয়ম

আমি এখন আপনাকে দেখাতে জানতে চাই আপনি যদি বাটন ফোনে বিকাশ একাউন্টের ব্যালেন্স করতে চান সেই ক্ষেত্রে কিভাবে করবেন।

*147# আপনার মোবাইলে প্রথমত এই কোড ডায়াল করুন এরপর আপনি এখানে বিভিন্ন রকম অপশন এর পাশে নাম্বার দেখতে পাবেন এখানে যেখানেই বক্সটি রয়েছে এখানে ওই নাম্বারটি দিবেন এরপর বিকাশ একাউন্ট এর ফ্রেন্ড দিয়ে সেন্ড বাটনে ক্লিক করার পর আপনি সকল তথ্য দেখতে পাবেন বিকাশ একাউন্টের।

বিকাশ অ্যাকাউন্ট মনিটাইজেশন করে টাকা ইনকাম কিভাবে করবেন?

আপনি যদি বিকাশের মাধ্যমে টাকা আয় করতে চান আমি এখন নিয়মটি দেখিয়ে দেবো কিভাবে বিকাশে টাকা আয় করা যায় তার জন্য নিজের কাজ গুলো মনোযোগ সহকামতো আপনি bkash অ্যাপস টি ওপেন করুনরে দেখুন।

প্রথমে বিকাশ অ্যাপসটি ওপেন করুন এরপর আপনি বিকাশ অ্যাপ স্লাইট বার অপশনটিতে ক্লিক করুন এরপর আপনি বিকাশ রেফার করুন এখানে ক্লিক করুন এরপর লিংকটি পাবেন এটি মানুষের কাছে শেয়ার করুন এরপর আপনি প্রতিটি বিকাশ একাউন্ট এর ক্ষেত্রে ১০০ টাকা করে ইনকাম করতে পারবেন।

কিভাবে nid অনলাইন কপি দিয়ে বিকাশ অ্যাকাউন্ট খুলবেন?

আগামী পর্বে আমি আপনাদেরকে জানানোর জন্য চেষ্টা করব যে আপনারা যারা এনআইডি কার্ড এখনো পর্যন্ত করতে পারেননি আপনার কাছে এনআইডি কার্ড এর কপি রয়েছে তারা কিভাবে বিকাশ একাউন্ট খুলতে পারবে জানতে আমাদের সাথেই থাকুন।

একটি এনআইডি দিয়ে কয়টি বিকাশ খোলা যায়?

আপনারা যারা জানতে ইচ্ছুকদের একটি এনআইডি কার্ড দিয়ে কয়টি বিকাশ একাউন্ট খোলা সম্ভব তাদের জন্য সঠিক উত্তর হচ্ছে আপনি শুধুমাত্র একটি আইডি কার্ড ব্যবহার করে একটি বিকাশ একাউন্ট খুলতে পারবেন।

বিকাশ সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য

bkash a to z সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য গুলো আমি আপনাদেরকে জানানোর চেষ্টা করেছি আপনি যদি বিকাশ নিয়ে কোন রকম সমস্যা এই ভুগে থাকেন অবশ্যই আমাদের কমেন্ট বক্সে লিখে জানাবেন আমরা যতটুকু সম্ভব আপনাকে তার সমাধান দেওয়ার চেষ্টা করব।

বিকাশ মোবাইল ব্যাংকিং নিয়ে এই আর্টিকেলটি যদি আপনার ভালো লাগে এবং আপনি যদি আপনার বন্ধুদের জানাতে আগ্রহ করেন তাহলে সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করুন ধন্যবাদ।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
error: Content is protected !!